রাত ১২:১৩ | বুধবার | ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

প্রাণ আপ

pran-up-add

“না আর সহ্য করতে পারছি না রোহিঙ্গাদের দেখে আমার দু’নয়নে শুধুই অশ্রু ঝরছে!-কলামিস্ট রয়েল।”

টেকনাফ ঘুরে এসে সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম(রয়েল): মায়ানমারের জাতিগত প্রতিহিংসার স্বিকার শতাব্দীর শ্রেষ্ঠতম পাষবিক ও নির্মম নির্যাতীত রোহিঙ্গা মুসলমানরা অন্তত এতটুকু প্রাণে বাঁচার প্রত্যাশায় নুন্যতম মানবিক অাশ্রয়ের জন্য যখন মৃত্যুকে হাতের তালুতে নিয়ে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে, তখনিই সীমান্তের একশ্রেনীর প্রভাবশালী ও দালাল শ্রেনীর অসামাজিক লোকজন কেড়ে নিচ্ছে সেই অসহায় মানুষগুলোর সাথে নিয়ে অাসা মুল্যবান স্বর্নালঙ্কার ও টাকা পয়সা ।

তাদের অসহায়ত্বে মেতে উঠেছে জৈবিক উম্মাদনায়, ধর্ষন করছে রোহিঙ্গা যুবতিদের।উখিয়া সীমান্তের আমতলী তুলাতলী পয়েন্টে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের সাথে রয়েছে মূল্যবান স্বর্ণলঙ্কারসহ অন্যান্য সামগ্রী। এছাড়া রয়েছে গবাদি পশুও।

অনুপ্রবেশ পয়েন্টে এক শ্রেণির দালাল অসহায় রোহিঙ্গাদের স্বর্ণ, মুল্যবান জিনিসপত্র ও গরু লুট করে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সুন্দরী যুবতীদের অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

সীমান্তের প্রতিদিনকার অাপডেট দিতে যেসব সংবাদকর্মীরা যারা নিয়মিত সীমান্ত এলাকায় গিয়ে এ সংক্রান্ত সংবাদ সংগ্রহ করছেন, তাদের কাঁছে এ ভয়াবহ অমানবিকতার চিত্র স্পষ্ঠত ফুটে উঠেছে ।

তাদের রিপোর্ট ও ফেসুবক স্ট্যাটাসেও এ বিষয়টির চিত্র ফুটে উঠছে।কলামিস্ট রয়েল রোহিঙ্গাদের এমন নির্যাতনের চিএ দেখে বলেন,’না আর এমন নির্যাতন সহ্য করা যাচ্ছে না।ওপারে মুসলমানদের উপর চরম নির্যাতন, বর্বরতা, গুলি, বাড়িঘরে আগুন, প্রাণ বাঁচাতে ছুটে আসার পথে নাফনদীতে ডুবে অসংখ্য নারী-শিশুর মৃত্যু। আর যারা জীবিত এপারে পৌঁছে তাদের স্বর্নালংকার লুটপাট, যুবতীদের শ্লীলতাহানি।

এই যেন আইয়ামে জাহেলিয়াতকেও হারমানায়।এ অবস্থায় সোচ্ছার না হয়ে কোন পরিণতিতে গেলে আমাদের মানবাধিকার সংগঠনগুলো কথা বলবে।’

পার্শ্ববর্তী মিয়ানমারেরর আরকানে রক্তের হুলিখেলা থেকে প্রাণ, ইজ্জত বাচাঁতে নারী, শিশু, বৃদ্ধরা দুর্বল চিত্তের যুবকরাও বান্দরবান, কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন উপজেলায় আশ্রয় নিচ্ছে, সরকার নমনীয় হওয়ায়।

কিন্তু অত্যন্ত দু:খ এবং লজ্জার বিষয় উখিয়া উপজেলা ঘেষে বর্ডারের বিশেষ করে রেজু আমতলী, ঘুমধুম জলপাইতলী, পালংখালীর রহমতের বিল বালুখালী দিয়ে ক্যাম্পে প্রবেশের পূর্বে চলছে লুটপাট, ছিনতাই, রাহজানি। যা মুসলিম হিসাবে পরকালে অবশ্যই জবাবদিহীর সম্মুখীন হতে হবে।

গত কদিনে শত শত গরু রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে, লুট করেছে স্বর্নালংকার। সুন্দরীযুবতীদের ধর্ষনের অপচেষ্টায় লিপ্ত অনেকেই। সর্বহারা রোহিঙ্গা আবাল,বৃদ্ধ, বণিতারা ফুফিয়ে কাদঁছে। যা অল্লাহার আরশ কাপঁছে। কারন এরা মজলুম। তাই এদের সবক্ষেত্রে বিবেচনায় রাখা সকলের নৈতিক দায়িত্ব।

রোহিঙ্গাদের ১২ মহিষ লুট করেছে জালিয়াপালং ইউনিয়নের মেম্বার মোজাম্মেল ও মুছা। ১২ টি মহিষের মধ্যে ২ মেম্বার ৪ টি মহিষ রেখে বাকী ৮ টি মহিষ বিক্রি করে দেয় ডিলার কবির, মৌলভী নুরুন্নবী, মোস্তাক, মোসলেম মিয়া, বদি আলম তৈয়বের নিকট।

বিজিবি ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভাইদের বলছি, রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে বাঁধা দিবেন ঠিক আছে, কিন্ত বাংলাদেশ যারা চলে এসেছে তারা এপারে লুটপাট সহ আরো কয়েক দফা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মায়ানমারের সামরিক জান্তার আগ্রাসনের স্বীকার মুসলমানদের প্রতি সহনশীল হওয়ার আহবান সত্ত্বেও পালংখালী আন্জুমান পাড়া সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ করা রোহিঙ্গাদের সাথে নিয়ে আসা তাদের সামান্য সম্বল গরু-মহিষ লুট করে নিচ্ছে স্থানীয় কিছু রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় থাকা ঘাপটি মারা নরপশু।

গতকাল মধ্যরাতেও বেশ কিছু মহিষ লুট করেছে দলের নাম ভাঙ্গিয়ে।হাইরে মানুষ! পশুর উপর দিয়ে চালালি তুদের নেতৃত্বের কর্তৃত্ব! নির্যাতিতদের সহযোগিতা না করি… কিন্তু লুট করার অধিকার তো কেও দেয়নি!!!

কেমন দল করিস তুরা? মমতাময়ী নেত্রীর আহবানকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে? কারা অসহায় মানুষের মানবতা লুট করছে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে মুখোশ উম্মোচন করে আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানাচ্ছি। আশ্রয়হীন, নির্যাতিত, অসহায় রোহিঙ্গাদের শেষ সম্বল গরু জোর করে, ভয় দেখিয়ে কেড়ে নেয়ার সংবাদ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে!

আরকানে মিয়ানমারের সেনা কর্তৃক রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন শুরুর পর বৈধভাবে এদেশে কোন গবাদি পশু আসেনি।স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী মহল, চিহ্নিত অসৎ জনপ্রতিনিধি এমন অমানবিক ব্যবসায় লিপ্ত! না আমার এই দু’নয়নে ‘আর সহ্য করতে পারছি না,অঝোরে অশ্রু ঝরছে রোহিঙ্গাদের জন্য!

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» এলকোহল থেকে লিভার ডিজিজ

» অভিনেতা ডিপজলের হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচার আজ

» আফগানিস্তানে সামরিক অভিযানে ৭ আইএস জঙ্গি নিহত

» ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ১৬.৫৬%

» দেবালয়ে আক্রমণ ও ভাঙচুরের পরিমান বেশি মাত্রায় সংঘটিত হচ্ছে || খালেদা জিয়া

» রায়পুরে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী গ্রেফতার

» ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ এর হাতে বাংলাদেশীকে আটক

» বাংলাদেশ ক্যাবল শিল্প লিমিটেডে (বাকেশি) বিভিন্ন শূন্য পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

» বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোতে বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

» পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা প্রশিক্ষণার্থী পদে ২২৪ জনের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

» পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

» গঙ্গাচড়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে টিফিন ক্যারিয়ার বিতরণ

» রাণীরবন্দরে গ্রাম বিদ্যুতবিদ কল্যাণ সমিতির উদ্যেগে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে অর্থ প্রদান

» কুড়িগ্রামে ৪জন রোহিঙ্গাকে শরনার্থী শিবিরে ফেরত পাঠানো হলো

» অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে চরফ্যাশনে চার শতাধিক মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও শিক্ষাবৃত্তি দিলেন উপমন্ত্রী-জ্যাকব

Biggapon

Biggapon

সদস্য মণ্ডলীঃ-

সম্পাদকঃ এ, বি মালেক (স্বপ্নিল)
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ লতিফুল ইসলাম
উপদেষ্টাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন
আইটি উপদেষ্টাঃ মাহির শাহরিয়ার শিশির
আইটি সম্পাদকঃ আসাদ্দুজামান সাগর
প্রকাশক ও নির্বাহী পরিচালক (CEO):
ইঞ্জিনিয়ার এম, এ, মালেক (জীবন)

যোগাযোগঃ-

৮৬৮ কাজীপাড়া, মিরপুর-১০, মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ-১২১৬।
ইমেইলঃ info@dailynewsbd24.com, dailynewsbd247@gmail.com,
ওয়েবঃ www.dailynewsbd24.com
মোবাইলঃ +৮৮-০১৯৯৩৩৩৯৯৯৪-৯৯৬,
+৮৮-০১৭২১৫৬৭৭৮৯

Design & Devaloped BY Creation IT BD Limited

,

“না আর সহ্য করতে পারছি না রোহিঙ্গাদের দেখে আমার দু’নয়নে শুধুই অশ্রু ঝরছে!-কলামিস্ট রয়েল।”

টেকনাফ ঘুরে এসে সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম(রয়েল): মায়ানমারের জাতিগত প্রতিহিংসার স্বিকার শতাব্দীর শ্রেষ্ঠতম পাষবিক ও নির্মম নির্যাতীত রোহিঙ্গা মুসলমানরা অন্তত এতটুকু প্রাণে বাঁচার প্রত্যাশায় নুন্যতম মানবিক অাশ্রয়ের জন্য যখন মৃত্যুকে হাতের তালুতে নিয়ে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে, তখনিই সীমান্তের একশ্রেনীর প্রভাবশালী ও দালাল শ্রেনীর অসামাজিক লোকজন কেড়ে নিচ্ছে সেই অসহায় মানুষগুলোর সাথে নিয়ে অাসা মুল্যবান স্বর্নালঙ্কার ও টাকা পয়সা ।

তাদের অসহায়ত্বে মেতে উঠেছে জৈবিক উম্মাদনায়, ধর্ষন করছে রোহিঙ্গা যুবতিদের।উখিয়া সীমান্তের আমতলী তুলাতলী পয়েন্টে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের সাথে রয়েছে মূল্যবান স্বর্ণলঙ্কারসহ অন্যান্য সামগ্রী। এছাড়া রয়েছে গবাদি পশুও।

অনুপ্রবেশ পয়েন্টে এক শ্রেণির দালাল অসহায় রোহিঙ্গাদের স্বর্ণ, মুল্যবান জিনিসপত্র ও গরু লুট করে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সুন্দরী যুবতীদের অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

সীমান্তের প্রতিদিনকার অাপডেট দিতে যেসব সংবাদকর্মীরা যারা নিয়মিত সীমান্ত এলাকায় গিয়ে এ সংক্রান্ত সংবাদ সংগ্রহ করছেন, তাদের কাঁছে এ ভয়াবহ অমানবিকতার চিত্র স্পষ্ঠত ফুটে উঠেছে ।

তাদের রিপোর্ট ও ফেসুবক স্ট্যাটাসেও এ বিষয়টির চিত্র ফুটে উঠছে।কলামিস্ট রয়েল রোহিঙ্গাদের এমন নির্যাতনের চিএ দেখে বলেন,’না আর এমন নির্যাতন সহ্য করা যাচ্ছে না।ওপারে মুসলমানদের উপর চরম নির্যাতন, বর্বরতা, গুলি, বাড়িঘরে আগুন, প্রাণ বাঁচাতে ছুটে আসার পথে নাফনদীতে ডুবে অসংখ্য নারী-শিশুর মৃত্যু। আর যারা জীবিত এপারে পৌঁছে তাদের স্বর্নালংকার লুটপাট, যুবতীদের শ্লীলতাহানি।

এই যেন আইয়ামে জাহেলিয়াতকেও হারমানায়।এ অবস্থায় সোচ্ছার না হয়ে কোন পরিণতিতে গেলে আমাদের মানবাধিকার সংগঠনগুলো কথা বলবে।’

পার্শ্ববর্তী মিয়ানমারেরর আরকানে রক্তের হুলিখেলা থেকে প্রাণ, ইজ্জত বাচাঁতে নারী, শিশু, বৃদ্ধরা দুর্বল চিত্তের যুবকরাও বান্দরবান, কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন উপজেলায় আশ্রয় নিচ্ছে, সরকার নমনীয় হওয়ায়।

কিন্তু অত্যন্ত দু:খ এবং লজ্জার বিষয় উখিয়া উপজেলা ঘেষে বর্ডারের বিশেষ করে রেজু আমতলী, ঘুমধুম জলপাইতলী, পালংখালীর রহমতের বিল বালুখালী দিয়ে ক্যাম্পে প্রবেশের পূর্বে চলছে লুটপাট, ছিনতাই, রাহজানি। যা মুসলিম হিসাবে পরকালে অবশ্যই জবাবদিহীর সম্মুখীন হতে হবে।

গত কদিনে শত শত গরু রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে, লুট করেছে স্বর্নালংকার। সুন্দরীযুবতীদের ধর্ষনের অপচেষ্টায় লিপ্ত অনেকেই। সর্বহারা রোহিঙ্গা আবাল,বৃদ্ধ, বণিতারা ফুফিয়ে কাদঁছে। যা অল্লাহার আরশ কাপঁছে। কারন এরা মজলুম। তাই এদের সবক্ষেত্রে বিবেচনায় রাখা সকলের নৈতিক দায়িত্ব।

রোহিঙ্গাদের ১২ মহিষ লুট করেছে জালিয়াপালং ইউনিয়নের মেম্বার মোজাম্মেল ও মুছা। ১২ টি মহিষের মধ্যে ২ মেম্বার ৪ টি মহিষ রেখে বাকী ৮ টি মহিষ বিক্রি করে দেয় ডিলার কবির, মৌলভী নুরুন্নবী, মোস্তাক, মোসলেম মিয়া, বদি আলম তৈয়বের নিকট।

বিজিবি ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভাইদের বলছি, রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে বাঁধা দিবেন ঠিক আছে, কিন্ত বাংলাদেশ যারা চলে এসেছে তারা এপারে লুটপাট সহ আরো কয়েক দফা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মায়ানমারের সামরিক জান্তার আগ্রাসনের স্বীকার মুসলমানদের প্রতি সহনশীল হওয়ার আহবান সত্ত্বেও পালংখালী আন্জুমান পাড়া সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ করা রোহিঙ্গাদের সাথে নিয়ে আসা তাদের সামান্য সম্বল গরু-মহিষ লুট করে নিচ্ছে স্থানীয় কিছু রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় থাকা ঘাপটি মারা নরপশু।

গতকাল মধ্যরাতেও বেশ কিছু মহিষ লুট করেছে দলের নাম ভাঙ্গিয়ে।হাইরে মানুষ! পশুর উপর দিয়ে চালালি তুদের নেতৃত্বের কর্তৃত্ব! নির্যাতিতদের সহযোগিতা না করি… কিন্তু লুট করার অধিকার তো কেও দেয়নি!!!

কেমন দল করিস তুরা? মমতাময়ী নেত্রীর আহবানকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে? কারা অসহায় মানুষের মানবতা লুট করছে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে মুখোশ উম্মোচন করে আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানাচ্ছি। আশ্রয়হীন, নির্যাতিত, অসহায় রোহিঙ্গাদের শেষ সম্বল গরু জোর করে, ভয় দেখিয়ে কেড়ে নেয়ার সংবাদ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে!

আরকানে মিয়ানমারের সেনা কর্তৃক রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন শুরুর পর বৈধভাবে এদেশে কোন গবাদি পশু আসেনি।স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী মহল, চিহ্নিত অসৎ জনপ্রতিনিধি এমন অমানবিক ব্যবসায় লিপ্ত! না আমার এই দু’নয়নে ‘আর সহ্য করতে পারছি না,অঝোরে অশ্রু ঝরছে রোহিঙ্গাদের জন্য!

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সদস্য মণ্ডলীঃ-

সম্পাদকঃ এ, বি মালেক (স্বপ্নিল)
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ লতিফুল ইসলাম
উপদেষ্টাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন
আইটি উপদেষ্টাঃ মাহির শাহরিয়ার শিশির
আইটি সম্পাদকঃ আসাদ্দুজামান সাগর
প্রকাশক ও নির্বাহী পরিচালক (CEO):
ইঞ্জিনিয়ার এম, এ, মালেক (জীবন)

যোগাযোগঃ-

৮৬৮ কাজীপাড়া, মিরপুর-১০, মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ-১২১৬।
ইমেইলঃ info@dailynewsbd24.com, dailynewsbd247@gmail.com,
ওয়েবঃ www.dailynewsbd24.com
মোবাইলঃ +৮৮-০১৯৯৩৩৩৯৯৯৪-৯৯৬,
+৮৮-০১৭২১৫৬৭৭৮৯

Design & Devaloped BY Creation IT BD Limited