বিকাল ৩:৪০ | মঙ্গলবার | ১৬ই জানুয়ারি, ২০১৮ ইং | ৩রা মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

প্রাণ আপ

pran-up-add

ঠাকুরগাঁওয়ে সন্তান জন্ম দিয়ে মায়ের লাপাওা!

মনিরুল ইসলাম (রয়েল), ঠাকুরগাঁও:
ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গীর এক নবজাতককে রেখে স্বামীর ঘর ছেড়ে চলে গেলেন এক মা। বালিয়াডাঙ্গীর দুওসুও ইউনিয়নের দুওসুও হাসানমেম্বারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, ১ বছর ৩ মাস আগে উক্ত গ্রামের নুরুল হকের ছেলে আলমের সাথে পাশের চাড়োল ইউনিয়নের কাঁচনা মুধুপুর এলাকার আলী মউদ্দিনের মেয়ে মরিয়মের বিয়ে হয়।

সুখের সংসারে যথারীতি মরিয়মের গর্ভে সন্তান আসে। হঠাৎ মরিয়মের সাথে পরিবারের মনমালিন্য দেখা দেয়। বিরোধ সৃষ্টি হতে শুরু করে। গর্ভে সন্তান নিয়ে বিপাকে পড়ে মরিয়ম।

এরই মাঝে মরিয়ম আলমের সঙ্গে সংসার করবে না জানিয়ে দিয়ে বাবার বাড়ি চলে যায়। আলম মরিয়মের গর্ভের সন্তানের কথা চিন্তা করে বিবাহ বিচ্ছেদ না করার জন্য শ্বশুর বাড়ির লোকজনকে অনুরোধ করেন। কিন্তু সন্তান জন্ম লাভের আগেই মরিয়ম তার পরিবারকে বুঝিয়ে আলমের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ (তালাক) করিয়ে নেয়।

গত ১০দিন আগে মরিয়মের গর্ভে কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। মরিয়ম ওই দিনের নবজাতক সন্তানকে তালাককৃত স্বামী আলমের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। ফলে নবজাতক সন্তান নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়ে আলম ও তার বাবা নুরুল হক। আলমের মা পূর্বেই মারা যাওয়ায় নবজাতকের যত্ন নিয়ে এখন ১০দিন যাবত বিপাকে দিন পার করছেন আলম।

আলম জানান, সন্তানের বাবা হওয়া অনেক আনন্দের। কিন্তু নবজাতক শিশুকে তার মা আমার কাছে রেখে চলে গেছে। আমি ও আমার বাবা মরিয়মকে অনেক অনুরোধ করেছি যেন জন্মের পর শিশুটিকে একটু যত্ন করে। আমি ভরণ-পোষণের সকল খরচ দিতে চেয়েছি। কিন্তু সন্তানের গর্ভধারিনী মা ও তার পরিবার রাজি হয়নি।

তিনি বলেন, শিশুটিকে কিভাবে যত্ন করবো সেটাও জানি না। দিন মজুরি করে কোনরকম সংসার চলে আমাদের। গত ১০দিন ধরে নবজাতক সন্তানের জন্য কাজেও যেতে পারিনি। কেউ যদি আমার এই নবজাতক সন্তানটির দায়িত্ব নেয় সারাজীবন কৃতজ্ঞ থাকবো।

নবজাতকের মা মরিয়মের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আলমের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। বিচ্ছেদের আগে যেহেতু সন্তান গর্ভে ছিল তাই জন্মের পর আলমকে সন্তানটি দিয়ে এসেছি। মায়ের দুধ ও যত্ন না পাওয়ায় শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়েছে এই অনুভূতিটি জানতে চাইলে তিনি এড়িয়ে যান।

আলমের প্রতিবেশী শেফালি বেগম জানান, মরিয়ম কেমন মা? একটি সন্তান জন্ম দিতে কতই না কষ্ট হয়, সে কি সেই কষ্ট কয়েক দিনেই ভুলে গেছে। একজন পুরুষ মানুষের কাছে এভাবে শিশুটি দিয়ে চলে যাওয়ায় অযত্নে ও মায়ের দুধের অভাবে দিন দিন অসুস্থ হয়ে পড়ছে শিশুটি।

আলমের বাবা নুরুল হক জানান, আলম ও আমি কোনমতে খেয়ে না খেয়ে দিন পারি করি। কিন্তু মরিয়ম হঠাৎ শিশুটি পাঠিয়ে দেওয়ায় আমরা বিপদে পড়েছি। কয়েক মাস শিশুটির লালন পালনের জন্য মরিয়মের পরিবারকে অনুরোধ করেছি। কিন্তু তারা নবজাতক শিশুটি নিতে নারাজ।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, শুনেছি সন্তান জন্মের পর আলমের স্ত্রী নবজাতকটিকে দিয়ে চলে গেছেন। কিন্তু শিশুটি ১০দিন ধরে মায়ের দুধ পান না করায় অসুস্থ হয়ে পড়েছে। আলম দরিদ্র। নবজাতকটিকে কেউ লালন-পালনের জন্য আগ্রহী থাকলে আলম দিয়ে দেবে। তার সিদ্ধান্ত আমাকে জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে নানা আলোচনা ও প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র প্রকাশিত

» আইফোন ও স্যামসাংকেও হার মানাবে হুয়াওয়ের মেট ১০!

» মাত্র ৭,৮৯০ টাকায় ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারযুক্ত ‘ওয়াল্টনের প্রিমো এইচএম৪’

» ডিএনসিসির মনোনয়ন ফরম বিক্রি করছে আ’লীগ

» সারাদেশে শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত

» সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ঢাবিতে বিক্ষোভ

» বাংলাদেশ দুর্নীতি দমন কমিশনে শূন্য পদে নিয়োগ

» মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

» নতুন রূপে এলো নকিয়া সিক্সে-২০১৮ এডিশন

» তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম ও তথ্য সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদকে বনপা’র অভিনন্দন

» দাবাং থ্রি-তে-সালমানের নায়িকা বাঙালি-মৌনী

» চলচ্চিত্রের সফলতার চেয়ে আলোচনা ছিল বেশি

» বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভা ৬ জানুয়ারি

» বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের নতুন নতুন সব উদ্ভাবন

» সৌদি প্রবাসীর কথিত স্ত্রী ও শ্বশুর-শাশুড়ি আটক

Biggapon

Biggapon

সদস্য মণ্ডলীঃ-

সম্পাদকঃ এ, বি মালেক (স্বপ্নিল)
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ লতিফুল ইসলাম
উপদেষ্টাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন
আইটি উপদেষ্টাঃ মাহির শাহরিয়ার শিশির
আইটি সম্পাদকঃ আসাদ্দুজামান সাগর
প্রকাশক ও নির্বাহী পরিচালক (CEO):
ইঞ্জিনিয়ার এম, এ, মালেক (জীবন)

যোগাযোগঃ-

৮৬৮ কাজীপাড়া, মিরপুর-১০, মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ-১২১৬।
ইমেইলঃ info@dailynewsbd24.com, dailynewsbd247@gmail.com,
ওয়েবঃ www.dailynewsbd24.com
মোবাইলঃ +৮৮-০১৯৯৩৩৩৯৯৯৪-৯৯৬,
+৮৮-০১৭২১৫৬৭৭৮৯

Design & Devaloped BY Creation IT BD Limited

,

ঠাকুরগাঁওয়ে সন্তান জন্ম দিয়ে মায়ের লাপাওা!

মনিরুল ইসলাম (রয়েল), ঠাকুরগাঁও:
ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গীর এক নবজাতককে রেখে স্বামীর ঘর ছেড়ে চলে গেলেন এক মা। বালিয়াডাঙ্গীর দুওসুও ইউনিয়নের দুওসুও হাসানমেম্বারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, ১ বছর ৩ মাস আগে উক্ত গ্রামের নুরুল হকের ছেলে আলমের সাথে পাশের চাড়োল ইউনিয়নের কাঁচনা মুধুপুর এলাকার আলী মউদ্দিনের মেয়ে মরিয়মের বিয়ে হয়।

সুখের সংসারে যথারীতি মরিয়মের গর্ভে সন্তান আসে। হঠাৎ মরিয়মের সাথে পরিবারের মনমালিন্য দেখা দেয়। বিরোধ সৃষ্টি হতে শুরু করে। গর্ভে সন্তান নিয়ে বিপাকে পড়ে মরিয়ম।

এরই মাঝে মরিয়ম আলমের সঙ্গে সংসার করবে না জানিয়ে দিয়ে বাবার বাড়ি চলে যায়। আলম মরিয়মের গর্ভের সন্তানের কথা চিন্তা করে বিবাহ বিচ্ছেদ না করার জন্য শ্বশুর বাড়ির লোকজনকে অনুরোধ করেন। কিন্তু সন্তান জন্ম লাভের আগেই মরিয়ম তার পরিবারকে বুঝিয়ে আলমের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ (তালাক) করিয়ে নেয়।

গত ১০দিন আগে মরিয়মের গর্ভে কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। মরিয়ম ওই দিনের নবজাতক সন্তানকে তালাককৃত স্বামী আলমের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। ফলে নবজাতক সন্তান নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়ে আলম ও তার বাবা নুরুল হক। আলমের মা পূর্বেই মারা যাওয়ায় নবজাতকের যত্ন নিয়ে এখন ১০দিন যাবত বিপাকে দিন পার করছেন আলম।

আলম জানান, সন্তানের বাবা হওয়া অনেক আনন্দের। কিন্তু নবজাতক শিশুকে তার মা আমার কাছে রেখে চলে গেছে। আমি ও আমার বাবা মরিয়মকে অনেক অনুরোধ করেছি যেন জন্মের পর শিশুটিকে একটু যত্ন করে। আমি ভরণ-পোষণের সকল খরচ দিতে চেয়েছি। কিন্তু সন্তানের গর্ভধারিনী মা ও তার পরিবার রাজি হয়নি।

তিনি বলেন, শিশুটিকে কিভাবে যত্ন করবো সেটাও জানি না। দিন মজুরি করে কোনরকম সংসার চলে আমাদের। গত ১০দিন ধরে নবজাতক সন্তানের জন্য কাজেও যেতে পারিনি। কেউ যদি আমার এই নবজাতক সন্তানটির দায়িত্ব নেয় সারাজীবন কৃতজ্ঞ থাকবো।

নবজাতকের মা মরিয়মের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আলমের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। বিচ্ছেদের আগে যেহেতু সন্তান গর্ভে ছিল তাই জন্মের পর আলমকে সন্তানটি দিয়ে এসেছি। মায়ের দুধ ও যত্ন না পাওয়ায় শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়েছে এই অনুভূতিটি জানতে চাইলে তিনি এড়িয়ে যান।

আলমের প্রতিবেশী শেফালি বেগম জানান, মরিয়ম কেমন মা? একটি সন্তান জন্ম দিতে কতই না কষ্ট হয়, সে কি সেই কষ্ট কয়েক দিনেই ভুলে গেছে। একজন পুরুষ মানুষের কাছে এভাবে শিশুটি দিয়ে চলে যাওয়ায় অযত্নে ও মায়ের দুধের অভাবে দিন দিন অসুস্থ হয়ে পড়ছে শিশুটি।

আলমের বাবা নুরুল হক জানান, আলম ও আমি কোনমতে খেয়ে না খেয়ে দিন পারি করি। কিন্তু মরিয়ম হঠাৎ শিশুটি পাঠিয়ে দেওয়ায় আমরা বিপদে পড়েছি। কয়েক মাস শিশুটির লালন পালনের জন্য মরিয়মের পরিবারকে অনুরোধ করেছি। কিন্তু তারা নবজাতক শিশুটি নিতে নারাজ।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, শুনেছি সন্তান জন্মের পর আলমের স্ত্রী নবজাতকটিকে দিয়ে চলে গেছেন। কিন্তু শিশুটি ১০দিন ধরে মায়ের দুধ পান না করায় অসুস্থ হয়ে পড়েছে। আলম দরিদ্র। নবজাতকটিকে কেউ লালন-পালনের জন্য আগ্রহী থাকলে আলম দিয়ে দেবে। তার সিদ্ধান্ত আমাকে জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে নানা আলোচনা ও প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সদস্য মণ্ডলীঃ-

সম্পাদকঃ এ, বি মালেক (স্বপ্নিল)
সহঃ সম্পাদকঃ মোঃ লতিফুল ইসলাম
উপদেষ্টাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন
আইটি উপদেষ্টাঃ মাহির শাহরিয়ার শিশির
আইটি সম্পাদকঃ আসাদ্দুজামান সাগর
প্রকাশক ও নির্বাহী পরিচালক (CEO):
ইঞ্জিনিয়ার এম, এ, মালেক (জীবন)

যোগাযোগঃ-

৮৬৮ কাজীপাড়া, মিরপুর-১০, মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ-১২১৬।
ইমেইলঃ info@dailynewsbd24.com, dailynewsbd247@gmail.com,
ওয়েবঃ www.dailynewsbd24.com
মোবাইলঃ +৮৮-০১৯৯৩৩৩৯৯৯৪-৯৯৬,
+৮৮-০১৭২১৫৬৭৭৮৯

Design & Devaloped BY Creation IT BD Limited